শুটিং শেষে মহাকাশ থেকে ফিরলেন রুশ চলচিত্র নির্মাতারা। মহাকাশে প্রথম সিনেমার শুটিং করার পর, রাশিয়ান অভিনেত্রী ইউলিয়া পেরেসিল্ড, প্রযোজক-পরিচালক ক্লিম শিপেনকো এবং মহাকাশচারী ওলেগ নোভিটস্কি নিরাপদে দেশে ফিরে এসেছেন।

মহাকাশ
মহাকাশ থেকে ফেরার পরের ছবি (ছবিঃ সংগৃহীত)

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বাকি নভোচারী এবং মহাকাশচারীদের বিদায় জানানোর পর বিকাল ৪.১০ মিনিটে হ্যাচটি বন্ধ করার পর ১৬ অক্টোবর সোয়ুজ এমএস -১৮মহাকাশযানটি রাত ৯.১৪ মিনিটে স্টেশন থেকে ছেড়ে আসে।

মহাকাশযানটি রাত ১১.৪২ মিনিটে ডিওরবিট করে ১৭ অক্টোবর রাত ১২.৩৫ মিনিটে (কাজাখস্তানের সময় ১০.৩৫ এএম) কাজাখস্তানের স্টেপে একটি প্যারাসুটের সহায়তায় অবতরণ করে।

রসকসমসের প্রধান দিমিত্রি রোগোজিন ক্রুদের ক্যাপসুল থেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সিনেমার কর্মীরা ল্যান্ডিং সাইটে সিনেমার জন্য অতিরিক্ত দৃশ্যের শুটিং করতে ঘুরছিলেন।

প্রাথমিক চিকিৎসা্র পর হেলিকপ্টারযোগে ক্রুদের কাজাখস্তানের কারাগান্ডায় পৌঁছে দেয়া হয়। তারপর তারা একটি বিমানের মাধ্যমে রাশিয়ার স্টার সিটির প্রশিক্ষণ ঘাঁটিতে পৌঁছেন।

পেরেসিল্ড এবং শিপেনকো ১০ দিনের পুনর্বাসন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যাবেন যেহেতু তারা ১২ দিন মহাশূন্যে কাটিয়ে পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন।

শুক্রবার সকালে সোয়ুজ মহাকাশযানের একটি নির্ধারিত থ্রাস্টার ফায়ারিং টেস্টের সময় ক্রুদের পৃথিবীতে প্রত্যাবর্তন হয় অথচ এটি তখনও স্পেস স্টেশনে ডক করা ছিল।

শুক্রবার ভোর ৫ টা ১৩ মিনিটে, পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা বলে থ্রাস্টার ফায়ারিং অপ্রত্যাশিতভাবে চলতে থাকে।এর ফলে স্পেস স্টেশনের ওরিয়েন্টেশন কন্ট্রোল নষ্ট হয়ে যায়।

নাসা জানিয়েছে, “৩০ মিনিটের মধ্যে, ফ্লাইট কন্ট্রোলাররা স্পেস স্টেশনের নিয়ন্ত্রণ নিতে সমর্থ হয়, যা এখন একটি স্থিতিশীল কনফিগারেশনে রয়েছে।” নাসা আরও জানায়, “ক্রুরা ইভেন্টের সময় জেগে ছিল এবং কোন বিপদে ছিল না।”

স্পেস এজেন্সি এবং রোসকসমস একসঙ্গে কাজ করছে এর কারণ উদ্ঘাটনের জন্যে।

পেরেসিল্ড এবং শিপেনকো ৫ অক্টোবর অভিজ্ঞ রুশ মহাকাশচারী আন্তন শাকপ্লেরভের সাথে মহাকাশ স্টেশনে ভ্রমণ করেছিলেন, এবং স্পেস স্টেশনে ডকিংয়ের সময় যোগাযোগের সমস্যার কারণে কিছুটা বাস্তব জীবনের নাটকের মুখোমুখি হয়েছিলেন।

তারা তাদের চলচ্চিত্র “চ্যালেঞ্জ” এর শুটিং ১২ দিন মহাকাশে অবস্থান করে সম্পন্ন করেন, যা মহাকাশে শুটিং করা প্রথম কোন চলচ্চিত্র ।

সিনেমাটিতে একজন সার্জনের গল্প থাকবে। পেরেসিল্ড অভিনয় করেছেন সেই সার্জনের চরিত্রে। যিনি নভিস্কি দ্বারা চিত্রিত। মহাকাশে অসুস্থ মহাকাশচারীর উপর কাজ করতে হয়, কারণ মহাকাশচারীরা চিকিৎসার জন্য পৃথিবীতেআসতে পারেন না।

ক্রু বিদায় এবং হ্যাচ ক্লোজিং চলাকালীন সময়েও সিনেমাটির চিত্রায়ন চলতে থাকে।

রোসকসমস এবং মস্কো ভিত্তিক মিডিয়া সত্ত্বা চ্যানেল ওয়ান এবং স্টুডিও ইয়েলো, ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইটের মধ্যে বাণিজ্যিক চুক্তির আওতায় ছবিটি তৈরি হচ্ছে।

স্কাপ্লেরভ মহাকাশ স্টেশনে থাকবেন এবং মার্চ মাসে নাসার মহাকাশচারী মার্ক ভান্ডে হেই এবং রোসকসমস মহাকাশচারী পিয়োটর দুব্রোভের সাথে সোয়ুজ এমএস -১ স্পেস মহাকাশযানে পৃথিবীতে ফিরে আসবেন।

খবরঃ সি.এন.এন